আসাবিয়া কী - আধুনিক জাতীয় রাষ্ট্রের সাথে আসাবিয়ার সম্পর্ক

আসাবিয়া কী? অথবা, আল আসাবিয়া বলতে কি বোঝ? অথবা, সংক্ষেপে ইবনে খালদুনের 'আসাবিয়া' প্রত্যয়টি ব্যাখ্যা কর। আধুনিক জাতীয় রাষ্ট্রের সাথে আসাবিয়ার সম্
Join our Telegram Channel!

প্রশ্ন ॥ আসাবিয়া কী? অথবা, আল আসাবিয়া বলতে কি বোঝ? অথবা, সংক্ষেপে ইবনে খালদুনের 'আসাবিয়া' প্রত্যয়টি ব্যাখ্যা কর। আধুনিক জাতীয় রাষ্ট্রের সাথে আসাবিয়ার সম্পর্ক কি? What is Asabia - The relationship of Asabia to the modern nation-state

আসাবিয়া কী - আধুনিক জাতীয় রাষ্ট্রের সাথে আসাবিয়ার সম্পর্ক

উত্তর : ভূমিকা : ইতিহাস দর্শনের ক্ষেত্রে-ইবনে খালদুন এক অবিস্মরণীয় নাম, তাকে সমাজতত্ত্বের জনক বলা হয়। তিনি উত্তর আফ্রিকায় তিউনিশ শহরে ১৩৩২ সালে এক সম্ভ্রান্ত পরিবারে জন্মগ্রহণ করেন। তার বাবা একজন প্রখ্যাত আলেম ছিলেন। ইবনে খালদুন রাষ্ট্রগঠনে আল আসাবিয়াকে অধিকতর গুরুত্ব দিয়েছেন।


আল আসাবিয়া : 

সমাজতত্ত্বের বিষয়বস্তু-এ-রাষ্ট্রীয় দর্শনের উত্থান-পতন বিস্তৃতি লাভে ইবনে খালদুনের যে ধারণা বা প্রত্যয়টি সর্বশেষ প্রাধান্য লাভ করেছে সেটি আল আসাবিয়াহ। একে আবার Social Soliderity সামাজিক সংহতি বলা হয়। আল আসাবিয়া বা সামাজিক সংহতি বলতে ইবনে খালদুন বুঝিয়েছেন সমাজের মানুষের একাত্মবোধকে যা শক্তিশালী জাতি তথা রাষ্ট্র গঠনে সাহায্য করে। এক্ষেত্রে ইবনে খালদুন সামাজিক সম্পর্কের উপর জোর দেন। আসাবিয়া হচ্ছে ইবনে খালদুনের কেন্দ্রীয় সমাজতাত্ত্বিক প্রত্যয়। আসাবিয়া তথা সামাজিক সংস্কৃতি প্রত্যয়টি খালদুনের সাধারণ এবং রাজনৈতিক সমাজবিজ্ঞানের প্রাণকেন্দ্রে অবস্থিত। সে কারণে খালদুনের সভ্যতা অধ্যয়নের কেন্দ্রবিন্দুতে যে বিষয়টি অবস্থান করেছে তা হলো ক্ষমতা রাষ্ট্রতত্ত্ব। ইবনে খালদুন Tribal society বা উপজাতীয় সমষ্টিকে বেশি গুরুত্ব দিয়েছেন। কারণ তিনি মনে করেন উপজাতীয়দের দ্বারাই মূলত রাষ্ট্রের উত্থান পতন সংঘটিত হয়। কেননা তার মতে, পাশ্চাত্য সমাজ প্রথম গ্রিসে আত্মপ্রকাশ করে। গ্রিক সভ্যতার পর রোমান সাম্রাজ্যের উত্থান হয়। তবে এ সাম্রাজ্য মাত্র ৩০০ বছর টিকে ছিল। কিন্তু এরা ছিল উপজাতি। কিন্তু পরবর্তীকালে দাসদের সরবরাহ হ্রাস পাওয়ায় তাদের সাম্রাজ্যের পতন ঘটতে থাকে। জার্মান উপজাতি ওনদের। নন ডেলকের আক্রমণে রোমান সাম্রাজ্যের পতন ঘটতে থাকে। ১৪৫৪ সালে পূর্ব রোমান সাম্রাজ্যের পতন হয় অটোমান উপজাতিদের হাতে। রোমান সাম্রাজ্যের পতনের পর ইউরোপ ছিল ৩০০-৪০০ বছর অন্ধকার যুগ। এরপর একজন মঙ্গোলিয়ান উপজাতি চেঙ্গিস খান নিজেকে ৫১ বছর বয়সে মঙ্গোলিয়ান- উপজাতির কাউন্সিলর ঘোষণা করেন। তিনি উত্তর কোরিয়া, চীন, কাতার, মধ্য এশিয়া, রাশিয়া ইত্যাদি অঞ্চল দখল করেন। 

উপসংহার : পরিশেষে বলা যায় যে রাষ্ট্র গঠনে আসাবিয়াহ বা সামাজিক সংহতির গুরুত্ব অপরিসীম। আর এটি মূলত উপজাতীয় সংহতির ক্ষেত্রে বেশি কার্যকরী হয়। তাই রাষ্ট্র গঠনে উপজাতীয় সংহতির গুরুত্ব অনেক বেশি সামাজিক সংহতির অংশ হিসেবে।


প্রশ্ন ॥ আধুনিক জাতীয় রাষ্ট্রের সাথে আসাবিয়ার সম্পর্ক কি? অথবা, আধুনিক জাতীয় রাষ্ট্রের সাথে আসাবিয়ার মিলগুলো লিখ। অথবা, আধুনিক জাতীয় রাষ্ট্রের সাথে আসাবিয়ার সাদৃশ্য কী?


উত্তর : ভূমিকা : সমাজবিজ্ঞানের ইতিহাসে ইবনে খালদুন এক অবিস্মরণীয় নাম। কারণ সমাজবিজ্ঞানের বিকাশের ক্ষেত্রে তার অবদান অপরিসীম। তিনি আসাবিয়ার মাধ্যমে আধুনিক জাতীয় রাষ্ট্রের বিবরণ দিয়েছেন। কারণ তিনি বিশ্বাস করেন যে আসাবিয়ার কারণে যেকোনো রাষ্ট্রের উত্থান পতন হয়।


আধুনিক জাতীয় রাষ্ট্রের সাথে আসাবিয়ার সম্পর্ক : 

আধুনিক রাষ্ট্রের জনক ম্যাকিয়াভ্যালি বিশ্বাস করতেন যে একটি জাতির অভ্যন্তরীণ জীবনে যতই অন্তর্দ্বন্দ্ব থাকুক না কেন যখন সে বাইরের কোনো শত্রুর মুখোমুখী হয় তখন তার এ অন্তর্দ্বন্দ্ব মুছে যায়। তিনি আরো বলেন, একটি জাতি অন্য জাতির সাথে তার পার্থক্য সম্বন্ধে এত বেশি সজাগ এবং নিজস্ব স্বাধীনতা সম্পর্কে এত বেশি সচেতন যে এ দুটি অনুভূতি তাকে অপরাজেয় শক্তিতে পরিণত করে। সে অটল ঐক্যে শত্রুর মোকাবিলায় অবতীর্ণ হয়। এর মূল কারণ হলো আসাবিয়া বা গোষ্ঠী সংহতি। কারণ এটি মূলত একই রাষ্ট্রে বসবাসকারী মানুষের সুসম্পর্ক। যদি আসাবিয়া না থাকত তবে আজকের এই আধুনিক রাষ্ট্র গড়ে উঠত না। ইবনে খালদুনের মতে, আসাবিয়ার ভিত্তিতেই আধুনিক জাতীয় রাষ্ট্রের উৎপত্তি। মানুষ স্বভাবতই সমাজ ছাড়া কোন মানুষের পক্ষে জীবনযাপন করা সম্ভব না। আর মানব সমাজ টিকে আছে মূলত পারস্পরিক সহযোগিতার ভিত্তিতে। এভাবে পারস্পরিক সাহায্য ও সহযোগিতার ভিত্তি থেকে সমাজের সৃষ্টি হয়। এজন্য রাষ্ট্রীয় শক্তির মূল অনুপ্রেরণা আসে গোষ্ঠি সংহতি থেকে। এজন্য আসাবিয়া ছাড়া আধুনিক জাতীয় রাষ্ট্রের কথা কখনো কল্পনা করা যায় না। আসাবিয়া বা গোষ্ঠী সংহতি আধুনিক জাতীয় রাষ্ট্র ধারণার সাথে ওতপ্রোতভাবে জড়িত। উদাহরণ হিসেবে বলা যায় বায়ান্নর ভাষা আন্দোলন, ৭১ এর মুক্তি যুদ্ধ সবই আসাবিয়ার কারণে সম্ভব হয়েছে।

উপসংহার : পরিশেষে বলা যায়, আসাবিয়ার সাথে আধুনিক জাতীয় রাষ্ট্রের অটল সম্পর্ক বিদ্যমান। কারণ আসাবিয়ার কারণেই আধুনিক জাতীয় রাষ্ট্র গড়ে উঠেছে। আমরা প্রতিটি দেশ, সভ্যতার দিকে তাকালেই শুধু আসাবিয়ার ফল দেখতে পাই। কারণ এটি মূলত একই সমাজের মানুষের পারস্পরিক দৃঢ়বন্ধন ।

আসাবিয়া কী - আধুনিক জাতীয় রাষ্ট্রের সাথে আসাবিয়ার সম্পর্ক, আসাবিয়া কী - আধুনিক জাতীয় রাষ্ট্রের সাথে আসাবিয়ার সম্পর্ক, আসাবিয়া কী - আধুনিক জাতীয় রাষ্ট্রের সাথে আসাবিয়ার সম্পর্ক, আসাবিয়া কী - আধুনিক জাতীয় রাষ্ট্রের সাথে আসাবিয়ার সম্পর্ক

Post a Comment

Cookie Consent
We serve cookies on this site to analyze traffic, remember your preferences, and optimize your experience.
Oops!
It seems there is something wrong with your internet connection. Please connect to the internet and start browsing again.
AdBlock Detected!
We have detected that you are using adblocking plugin in your browser.
The revenue we earn by the advertisements is used to manage this website, we request you to whitelist our website in your adblocking plugin.
Site is Blocked
Sorry! This site is not available in your country.
close